1. bbdbarta@gmail.com : Delowar Delowar : Delowar Delowar
  2. bbdbartabd@gmail.com : Delower Hossain : Delower Hossain
  3. jmitsolution24@gmail.com : support :
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিবচর শিকদার হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষা সফরে মদপান দুই শিক্ষক বহিষ্কার একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষাশহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন । গোপালগঞ্জে অপরূপ রূপে প্রকৃতিকে সাজাতে আসছে ঋতুরাজ বসন্তের শিমুল ফুল মুকসুদপুরে বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ আহত-১৬ জন আজ বাংলাদেশের বিশ্ববরেণ্য পরমাণুবিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ৮২তম জন্মবার্ষিকী রাজৈরের কদমবাড়ি বাজারে অবৈধ ব্যান্ডরোলের বিড়ি বিক্রি করায় ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা আজ রাঘদী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম শাহাবুদ্দিন খানের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিক মাদারীপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের ২গ্রুপের সংঘর্ষ আহত-৭ গুলিবিদ্ধ-১জন রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ি ইউনিয়নে গাছ থেকে পড়ে প্রাণ গেলএক যুবকের আ:লীগ নেতা সাইদুর রহমান টুটুলের মামলায় কাবির মিয়া সহ ৬ জন গেফতার

গোপালগঞ্জে উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ

  • Update Time : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৭৭ Time View

দৈনিক বঙ্গবন্ধু দেশ বার্তা : আজ সোমবার (১১ এপ্রিল) দুপুরে গোপালগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী এস এম মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির প্রতিবাদে ও অপসারনের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মরকলিপি দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

মিছিলটি জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সমানে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: মাইন উদ্দিন ভূঁইয়াকে অপসারেন দাবীতে বিভিন্ন শ্নোগান দেয় শিক্ষার্থীরা।

পরে শিক্ষার্থীদের তিন সদস্যের একটি দল অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বক) মো: রাশেদুর রহমানের কাছের প্রধান শিক্ষকের বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দেয়। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের নানা অভিযোগ শোনেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, ক্লাস রুমের সংকট থাকলেও তিনি তিনটি ক্লাস রুম দখল করে নিজের বাস ভব তৈরী করেছেন, স্কুলের ২৫ কম্পিউটারের মধ্যে ১৫ কম্পিউটার বিক্রি করে দিয়েছেন, বোর্ডকৃত রেজিষ্ট্রশন ফি ১৪৪ টাকার বদলে ৩৫০ টাকা ও টিফিন ফান্ড থেকে প্রতি মাসে ১২ হাজার টাকা ভাতা হিসাবে নিয়ে থাকেন তিনি।

এস এম মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী আল আমিন বলেন, আমার জেলার একটি ঐতিহ্যবাহী স্কুলে পড়াশোনা করি। এখানে আমরা দূর্নীতি শিখতে আসিনি। আমাদের টিফিন ফান্ড থেকে প্রতি মাসে ১২ হাজার টাকা নেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। যে কারনে আমাদের নিম্নমানের টিফিন দেয়া হয়।

৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী তাওশীন ইসলাম নাহিয়ান বলেন, আমাদের বেতন হলো ১২৫ টাকা। সেখানে তিন মাসে বেতন হয় ৩৭৫ টাকা। কিন্তু আমাদের প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৮৪০ টাকা কের নিয়েছেন।

১০ শ্রেনীর শিক্ষার্থী সিয়াম আহম্মেদ বলেন, আমাদের কম্পিউটার ল্যাবে ২৫টি কম্পিউটার ছিল। কিন্তু এর মধ্যে ১৫টি কম্পিউটার বিক্রি করে দিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। আমারা দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের বিচার চাই।

এ ব্যাপারে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: মাইন উদ্দিন ভূঁইয়া তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি যা কিছু করেছি প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে করেছি ব্যক্তিস্বার্থে কিছু করিনি।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বক) মো: রাশেদুর রহমান বলেন, এস এম মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দূর্নীতির অাভিযোগ এরে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমেছে।

আমি তাদের কথা শুনেছি। শিক্ষার্থীরা একটি অভিযোগ দিয়েছে। বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ছুটিতে ঢাকায় রয়েছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024