বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:২৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ঐতিহাসিক গাজীর ভুই নামকরনের সংক্ষিত ইতিহাস আম গ্রামের ভন্ড পীর প্রতারক সৈয়দ আক্তার হোসেন লিটন পাগলার বিরুদ্ধে মামলা ভাঙ্গা উপজেলার তুজারপুর ইউনিয়নে ট্রেনে কাটা পড়ে এক যুবক নিহত শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধুর ছবি আঁকলো শতাধিক শিশু টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমা শুক্রবার থেকে ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু কাশিয়ানীতে ভাবীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে দেবর গ্রেফতার প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে গোপালগঞ্জে শীতার্তরা পেলেন ২০ হাজার কম্বল গোপালগঞ্জে তীব্র শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন মাদারীপুর নতুন শহর এলাকায় অসহায়দের মধ্যে কম্বল বিতরন করেন শাজাহান খান
গোপালগঞ্জে আপন বড় ভাই র হাতে ছোট বোন হালিমা খাতুন খুন

গোপালগঞ্জে আপন বড় ভাই র হাতে ছোট বোন হালিমা খাতুন খুন

দৈনিক বঙ্গবন্ধু দেশ বার্তা : গোপালগঞ্জে আজ মঙ্গলাবার (৮মার্চ) দুপুরে কোটালীপাড়ায় আপন বড় ভাই সিফাতুল্লাহ’র হাতে ছোট বোন হালিমা খাতুন (১৩) খুন হয়েছে।

উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের ছোট দিঘলীয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পারিবারিক কলহের জের এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর ভাই সিফাতুল্লাহ পালাতক ।

জানাযায় দুপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর উপর অভিমান করে নুরুন্নাহার বেগম বাড়ি থেকে অন্যত্র চলে যায়। অপরদিকে, জাকির হোসেনও বাড়ি থেকে কাজে চলে যায়। এ সময় পারিবারিক কলহ নিয়ে ভাই সিফাতুল্লাহ ও বোন হালিমা খাতুনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সিফাতুল্লাহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে হালিমা খাতুনের গলা কেটে হত্যা করে।

এলকাবাসী বলছেন, নিহতের মা নুরুন্নাহার একাধিক পুরুষের সঙ্গে পরকীয় লিপ্ত ছিলেন। এ নিয়ে পরিবারে সব সময় অশান্তি লেগে থাকতো। আজ দুপুর ১২টার দিকে স্বামী স্ত্রীর ভিতর কথা কাটাকাটি হয়। এসময় স্বামীর উপর অভিমান করে নুরুন্নাহার বেগম বাড়ি থেকে চলে যায়।

এরপর বাবা মায়ের কলহ নিয়ে ভাই সিফাতুল্লাহ ও বোন হালিমা খাতুনের সাথে কথা কাটাকাটি হলে এক পর্যায়ে সিফাতুল্লাহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে হালিমা খাতুনের গলা কেটে হত্যা করে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি মোঃ জিল্লুর রহমান বলেন, ঘটনার প্রকৃত কারণ এখনো বলা যাচ্ছে না। আমরা সিফাতউল্লাকে আটকের চেষ্টা করছি। সে বর্তমানে পলাতক রয়েছে।

তাকে খুঁজে পেলেই হালিমা হত্যার প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। আমরা হালিমা খাতুনের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি।এরপর সন্ধ্যা ৬টার পর সিফাতুল্লাহ নিজে গোপালগঞ্জ সদর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2020
Desing & Developed BY BBDBARTA