1. bbdbarta@gmail.com : Delowar Delowar : Delowar Delowar
  2. bbdbartabd@gmail.com : Delower Hossain : Delower Hossain
  3. jmitsolution24@gmail.com : support :
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আসামির নামের সঙ্গে শুধুমাত্র নাম মিল থাকায় গ্রেফতার হল কলেজ ছাত্র পরকীয়া প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় ধরা পড়ল প্রধান শিক্ষক পরে গণধোলাই গোপালগঞ্জ জেলায় এসএসসি পরীক্ষায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে রাবেয়া-আলী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ। ইতালী যাওয়ার পথে তিউনিশিয়ার ভূমধ্যসাগরে ৮ বাংলাদেশী নিহত ডেঙ্গুজ্বর এর লক্ষণ ও ধরন সম্পর্কে জানুন শিবচর রেল স্টেশনে জোড়া ট্রেন উদ্বোধন করেন রেলমন্ত্রী মো: জিল্লুল হাকিম মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্ধিতায় ৩ প্রার্থী বিজয়ের পথে আজ ৬ জেলায় ঝড়বৃষ্টির হওয়ার সম্ভাবনা টেকেরহাট কুমার নদীতে বৈদ্যুতিক শক মেশিন দিয়ে মৎস্য নিধন হুমকিতে জীববৈচিত্র্য ও পরিবেশ

পবিত্র কাবা শরীফের ইমাম আব্দুর রহমান আল-সুদাইস এর সংক্ষিপ্ত জীবনী

  • Update Time : বুধবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২০৫ Time View

এসএম .দেলোয়ার : বর্তমান মুসলিম বিশ্বের যে কজন বিশিষ্ট আলেম রয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম সৌদি আরবের পবিত্র কাবা শরীফের ইমাম আব্দুর রহমান আল-সুদাইস ।১৯৬০ সালে সৌদি  আরবের  রাজধানী রিয়াদে জন্মগ্রহণ করেন তিনি ।খুবই অল্প সময় এর মধ্যে মাত্র ১২ বছর বয়সে কুরআন শরীফ মুখস্থ করতে সক্ষম হয়ে ছিলেন এই মেধাবী বালক।মহান আল্লাহ দিয়েছেন পবিত্র কুরআন জ্ঞান, যা অন্যদের চেয়ে আলাদা।

 শিক্ষা জীবনে আল সুদাইস ১৯৭৯ সালে ও ১৯৮৩ সালে রিয়াদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক করেন, সে খানে থেকে তিনি প্রথম ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮৭ সালে তিনি মাস্টার্স শেষ করেন ইমাম মুহাম্মাদ ইবনে সৌদ ইসলামি বিশ্ববিদ্যায় থেকে  ১৯৯৫ সালে তিনি  ইসলামী শরীয়াতে ডক্টরেট  ডিগ্রি লাভ করেন  ।ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং তার ৯জন সন্তান রয়েছে। কর্মজীবনে

তার প্রথম চাকরি ছিল রিয়াদ বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী অধ্যাপক হিসাবে। যখন তিনি কাবার ইমাম নির্বাচিত হন তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৪ বছর।  মসজিদ আল হারামে প্রথম খুতবা দেন তিনি তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৪ বছর।আল সুদাইস বিশ্বাস করেন যে, কাবার ইমাম হওয়া শুধু তার মায়ের কারণে। এটি উল্লেখ করা হয়েছে যে ইমাম আবদুর রহমান আল-সুদাইসের মা শৈশবে তাকে দুআ করতেন এই বলে যে, “আল্লাহ আপনাকে হারামাইনের ইমাম করুন।২০১২ সালে, তাকে সৌদি আরবের উভয় পবিত্র মসজিদের প্রেসিডেন্সির প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করায় মন্ত্রীর পদমর্যাদা দেওয়া হয়।

এছাড়াও আল-সুদাইস পবিত্র কোরআনের একজন বিশিষ্ট পাঠক ক্বারী মক্কার আরবি ভাষা শিক্ষায়তনের সদস্য এবং দুবাই আন্তর্জাতিক পবিত্র কোরআন পুরুস্কার( ডিআইএইচকিউএ) আয়োজক কমিটি কর্তৃক নবম বার্ষিক “ইসলামিক ব্যক্তিত্ব বর্ষ হিসেবে মনোনীত ব্যক্তিত্ব।আল-সুদাইস সন্ত্রাসবাদ প্রতিহত করার জন্য বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন উদ্যোগের ব্যবস্থা করেছেন, ইসলাম বিরোধীদের কাছে “বোমা হামলা এবং সন্ত্রাসবাদ” বিষয়ে ভুল ধারণা খন্ডন ও শান্তিপূর্ণ আন্তঃধর্ম সংলাপের আয়োজন করেছেন তিনি।মুসলিম বিশ্বের বিখ্যাত এই ইমামের কন্ঠে মক্কা ও মদিনা বাসি সহ বিভিন্ন দেশের মুসলিমরা পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত শুনতে অনেক পছন্দ করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024